করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় বারাসাত স্টেট জেনারেল হাসপাতালের সিস্টার ইনচার্জ কবিতা দত্তর।

Homepost দেশ বিশেষ বিশেষ

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ জন সমক্ষে এল না করোনা যোদ্ধার মৃত্যুর তথ্য। গত ১৫মে কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় বারাসাত স্টেট জেনারেল হাসপাতালের সিস্টার ইনচার্জ কবিতা দত্তর।
১৫মে করোনার উপসর্গ নিয়ে টেকনো গ্লোবাল হাসপাতালে ভর্তি হন কবিতা। কিন্তু তাঁর রিপোর্ট নেগেটিভ আসায় তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়। এর তাঁকে ভর্তি করা হয় আরজি কর মেডিকেল কলেজে। সেখানে নাকি কবিতাকে কোভিড ওয়ার্ডে রেখেই চিকিৎসা করা হয়। সূত্রের খবর ভেন্টিলেটর তো নয়ই আইসিসিইউতেও নাকি তাঁকে রাখা হয়নি। বয়স হয়েছিল ৫৯ বছর।
অন্যদিকে ডিসানে ভেন্টিলেশনে নার্স।  রাজ্যের হাসপাতালগুলো যেন মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে। আরও এক নার্স এই মুহূর্তে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন। ডিসান হাসপাতালের সিস্টার ইনচার্য পিয়াসী পালিত সঙ্কটজনক অবস্থায় ভেন্টিলেশনে রয়েছেন। একশো শতাংশ সাপোর্ট দেওয়া হচ্ছে তাঁকে। গত এক সপ্তাহ ধরে কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত তিনি। আইসিসিইউতে চিকিৎসা চলছিল তাঁর। আজ অবস্থার অবনতি হলে পিয়াসীকে ভেন্টিলেশনে দেওয়া হয়।
প্রসঙ্গ রাজ্যের বেশ কিছু চিকিৎসক এবং নার্স ইতিমধ্যেই করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মারাও গিয়েছেন কয়েকজন। এর মধ্যে লকডাউন শিথিল হওয়ায় এবং বাসে দূরত্ব বজায় না রেখে যাতায়াত শুরু হওয়ায় করোনা আতঙ্ক বেড়ে গিয়েছে।
কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে ডাক্তার, নার্সদের। উল্লেখ করা যেতে পরিকাঠামোর অভিযোগ তুলে ভিন রাজ্যের বেশ কিছু নার্স রাজ্য ছেড়ে চলে গিয়েছেন। পিয়াসীকে নিয়ে যথেষ্ট দুশ্চিন্তার মধ্যে রয়েছেন তাঁর সহকর্মীরা।

Share this: